Featured Posts

[Travel][feat1]

How create Gmail account in Bengali ( কিভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট বানাবেন )

November 25, 2019

How create Gmail account in Bengali ( কিভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট বানাবেন ) :

Gmail account


আপনি কি আপনার জন্য একটা জিমেইল অ্যাকাউন্ট বানাতে চান ? যে কোন কম্পানি বা ব্যক্তির সাথে ইমেইল করতে হলে ইমেইল আইডি চাই সেটা কি আপনার কাছে নেই ? ইমেল আইডি কি এবং কিভাবে তৈরি করতে হয় সেটা আপনার জানা নেই বা জিমেইল আইডি এর কি কি উপকারিতা তা জানা নেই ।

তাহলে আপনার চিন্তার কোনো প্রয়োজন নেই আজকের এই  how create Gmail account in Bangla ( কিভাবে জিমেইল একাউন্ট বানাবেন ) টিউটরিয়াল থেকে জানতে পারবেন কিভাবে জিমেইল আইডি তৈরি করতে হয়, কিভাবে অন্যকে মেইল পাঠাতে হয় এবং জিমেইল আইডি থাকলে তার কি কি উপকারিতা পাবেন।
তাহলে এটি জানতে হলে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ধাপে ধাপে এই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে । এই আর্টিকেলটি পড়ার পরে আপনি নিজেই নিজের ইমেইল আইডি তৈরি করতে পারবেন ।


জিমেইল একাউন্ট কিভাবে তৈরি করবেন ( how create Gmail account in Bangla ) :


জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পদ্ধতি খুবই সহজ নিচে ধাপে ধাপে বিবরণ করলাম মনদি দেখাবেন ‌ ।

Step 1 : সবার প্রথমে যে কোন একটি ব্রাউজার ওপেন করতে হবে তারপর গুগল এ গিয়ে সার্চ করতে হবে "create gmail account"

Step 2 : তারপর সার্চ রেজাল্টে সর্বপ্রথম আর্টিকেল "Create a Gmail account - Gmail Help - Google Support" এই লিঙ্কটিতে ক্লিক করবেন ।

Step 3 : তারপর "create an account" এ ক্লিক করতে হবে ।

Step 4 : তারপর একটি অপশন আসবে "for myself" এবং  "to manage my business" এখানে আপনাকে "for myself"  এ ক্লিক করতে হবে ।

Step 5 : তারপর আপনাকে আপনার নাম লিখতে হবে এখানে "first name" এর জায়গায় আপনার নাম এবং "Last name" এর জায়গায় আপনার পদবী লিখে নিচের নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন ।

Step 6 : তারপর আপনাকে আপনার জন্ম তারিখ ( Date of Birth ) এবং লিঙ্গ ( Gender ) লেখার পরে নিচে নেক্সট বাটনে ক্লিক করতে হবে ।

Step 7 : তারপর গুগল আপনাকে কিছু জিমেইল অ্যাড্রেস সাজেস্ট করবে যেমন - "example3647@gmail.com" এটি যদি আপনার পছন্দ না হয় তাহলে নিচে "create your own Gmail address" এ ক্লিক করে আপনার পছন্দ মতন জিমেইল এড্রেস নিতে পারেন , তারপর আপনাকে নিচে নেক্সট বাটনে ক্লিক করতে হবে ।

Step 8 : তারপর আপনাকে আপনার জিমেইল একাউন্টের পাসওয়ার্ড দিতে  বলবে, মনে রাখবেন পাসওয়ার্ড একটু স্ট্রং রাখবেন যাতে আপনার অ্যাকাউন্ট কেউ এক্সেস করতে না পারে । এর জন্য আপনি লেটার , নাম্বার , এবং স্পেশাল ক্যারেক্টার ইউজ করতে পারেন ।
যেমন - Example194@*# , এখানে বড় হাতের অক্ষর ছোট হাতের অক্ষর সংখ্যা এবং স্পেশাল ক্যারেক্টার সবকিছুই রয়েছে এরকম আপনি আপনার মন পছন্দ পাসওয়ার্ড দিয়ে নিচে নেক্সট বাটনে ক্লিক করবেন ।

Step 9 :  তারপর আপনাকে আপনার ফোন নাম্বার দিতে বলবে এটি না দিলেও হবে কিন্তু আমি বলব আপনি আপনার ফোন নাম্বার দিয়ে রাখবেন কারণ আপনি যদি কোন কারনে কোন সময় আপনার একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে যান তাহলে মোবাইল নাম্বার এর দ্বারা আপনি পাসওয়ার্ড রিকভার করতে পারবেন । আপনার মোবাইল নাম্বার ইন্টার করার পরে নিচে নেক্সট বাটনে ক্লিক করবেন ।

Step 10 : আপনার সামনে একটি "terms and condition" পেজ ওপেন হবে সেদিকে আপনি পড়তেও পারে নাও পড়তে পারেন, তারপর নিচে "I agree" বাটনে ক্লিক করবেন ।

ব্যাস এইবারে আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণভাবে তৈরি হয়ে গেল এবারে আপনি যে কোন ব্যক্তির সাথে ইমেইল করতে পারবেন এবং আপনাকেও যে কেউ ইমেইল করতে পারবে আপনার জিমেইল আইডির মাধ্যমে ।
এইবার জেনে নিন কিভাবে আপনি কাউকে ইমেইল পাঠাতে পারবেন আপনার জিমেইল একাউন্টের দ্বারা , এজন্য আপনাকে নিচে দেওয়া ধাপগুলি মনোযোগ সহকারে দেখতে হবে ।

How send email with anyone in Bengali ( কিভাবে যেকোনো ব্যক্তিকে আপনি ইমেইল করতে পারবেন ) :


এর জন্য আপনাকে যাকে আপনি ইমেইল পাঠাবেন তার জিমেইল এড্রেস  জানতে হবে, যেমন আপনাকে যদি কেউ ইমেইল করবে তাহলে আপনাকে আপনার জিমেইল এড্রেস যেটা আপনি তৈরি করলেন সেটা তাকে জানতে হবে ।

Step 1 : এর জন্য আপনাকে ফোনে জিমেইল অ্যাপস ওপেন করতে হবে এবং যদি আপনি কম্পিউটারে করেন তাহলে গুগলে গিয়ে সার্চ করবেন জিমেইল এবং আপনার ইমেইল এড্রেস এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করবেন ।

Step 2 : তারপর বাম দিকে send এ ক্লিক করে একেবারে নিচে ডান দিকে একটি প্লাস সাইন (+) এ ক্লিক করতে হবে ।

Step 3 : তারপর আপনার কাছে তিনটি অপশন আসবে "To" , "Subject" এবং "compose email" এই "To" এর জায়গায় আপনি যাকে ইমেইল পাঠাবেন তার ইমেইল এড্রেস লিখতে হবে তারপর  "Subject" এর জায়গায় আপনি কি বিষয়ে ইমেইল করছেন সেটা লিখতে হবে এবং "compose email" এর জায়গায় পুরো মেসেজটা লিখতে হবে । তারপর উপরে ডানদিকে তীর চিহ্নের মতো একটা সাইন থাকবে সেটিতে ক্লিক করলে আপনার ইমেল তার কাছে পৌঁছে যাবে ।

একটা কথা মনে রাখবেন ইমেইল পাঠানোর সময় আপনার ইন্টারনেট কানেকশন অন চচরাখতে হবে না হলে কিন্তু ইমেইল সেন্ড ফেল হয়ে যাবে ।


Benefits of G-mail id in Bengali ( জিমেইল আইডি এর উপকারিতা ) :


দেখুন জিমেইল আইডির অনেক উপকারিতা আছে তার মধ্যে কিছু আমি তুলে ধরেছি

i) সর্বপ্রথম যেমন আপনার যদি জিমেইল আইডি না থাকে তাহলে আপনি কোন কোম্পানিকে বা কোন ব্যক্তিকে  ইমেইল পাঠাতে পারবেন না বা কেউ আপনাকেও ইমেইল পাঠাতে পারবে না, তাই জিমেইল আইডি প্রয়োজন ।

ii) যদি আপনার জিমেইল আইডি না থাকে তাহলে আপনি প্লে স্টোর থেকে কোন কিছু অ্যাপস ডাউনলোড করতে পারবেন না এবং কোন অ্যাপ আপডেট করতে পারবেন না, তাই জিমেইল আইডি প্রয়োজন ।

iii) জিমেইল আইডি না থাকলে আপনি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে পারবেন না এবং ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন না । আরো নানান ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন যদি আপনার জিমেইল আইডি না থাকে,  তাই জিমেইল আইডি প্রয়োজন ।


আশা করছি আপনি আজকের এই  How create Gmail account in Bengali ( কিভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট বানাবেন )  টিউটোরিয়াল থেকে জানতে পারলেন কিভাবে আপনি আপনার জিমেইল আইডি তৈরি করতে পারবেন , এবং কিভাবে আপনি কাউকে ইমেইল পাঠাতে পারবেন, এবং কি কি উপকারিতা জিমেইল আইডির । 

আশা করছি টিউটোরিয়ালটি আপনার হেল্প ফুল হয়েছে এটি বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করবেন এবং কোন রকম প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানাবেন আমি কমেন্টের রিপ্লাই দেওয়ার চেষ্টা করব । ধন্যবাদ ।
How create Gmail account in Bengali ( কিভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট বানাবেন ) How create Gmail account in Bengali ( কিভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট বানাবেন ) Reviewed by specialwish on November 25, 2019 Rating: 5

What Difference Between Laptop vs Desktop in bangla কোনটি কেনা উচিত ?

November 25, 2019

What Difference Between Laptop vs Desktop in bangla কোনটি কেনা উচিত ?

Different between laptop vs Desktop


যখন আমরা প্রথম কম্পিউটার কেনার কথা ভাবি তখন আমাদের মনের মধ্যে কিছু কনফিউশন আছে যেমন - ল্যাপটপ নেব না ডেক্সটপ নেব , এই দুটির মধ্যে আসলে কি পার্থক্য ? যদি ডেক্সটপ ভালো তো কেন ভালো ?  আর যদি ল্যাপটপ ভালো তো কেন ভালো ? এমন আরো অনেক প্রশ্ন আমাদের মনে আসে তো চলুন আজকের এই What Difference Between Laptop and desktop in bangla আর্টিকেল থেকে জানতে পারবো যে আমাদের কাজের অনুসারে কোনটি নেওয়া উচিত | ল্যাপটপ vs ডেক্সটপ কোনটি নেওয়া ভালো হবে ?

ডেক্সটপ নিবেন না ল্যাপটপ নিবেন সেটা তো আপনার প্রয়োজনীয়তার উপর নির্ভর করে, আপনি কোন কাজের জন্য জিনিসটা কিনবেন জিনিসটাকে নিয়ে ট্রাভেল করবেন না অফিসে বা বাড়িতে বসে কাজ করবেন,  যদি আপনি এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ট্রাভেল করেন তাহলে আপনার ল্যাপটপ নেওয়া ভালো হবে এবং যদি আপনি বাড়িতে বা অফিসে বসে কাজ করেন তাহলে আপনার ডেক্সটপ নেওয়া ভালো হবে, তো এখন ডেস্কটপ নিব না ল্যাপটপ নিব সেটা সিদ্ধান্ত করার আগে আমাদের জেনে নিতে হবে এই দুটির মধ্যে আসলে পার্থক্য কি যদি আপনি এই দুটির পার্থক্য জানতে পারেন তাহলে আপনার দুটির মধ্যে কোনটা নিবেন তা নির্ণয় করতে সুবিধা হবে ।

ডেক্সটপ আর ল্যাপটপ এর মধ্যে কি পার্থক্য ( Difference Between Laptop and Desktop )



১. পর্টাবিলিটি ( Portability )

পোর্টেবিলিটি এর মানে হচ্ছে যে আপনি যেটিকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় খুব সহজে নিয়ে যেতে পারবেন,  আপনারা জানেন যে ডেক্সটপকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যেতে কত ঝামেলা হয় সে ক্ষেত্রে যদি আপনি ল্যাপটপ নেন তাহলে আপনি একটি ব্যাগের মধ্যে রেখে যেখানে খুশি নিয়ে যেতে পারেন এবং সেখানে ব্যবহার করতে পারেন, এটি একটি পার্থক্য ল্যাপটপ এবং ডেস্কটপ এর মধ্যে
তো কম্পিউটার কেনার সময় একটা কথা মনে রাখবেন - যদি আপনি প্রতিনিয়ত ট্রাভেল করেন এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যান এবং সেখানে আপনার কাজ কম্পিউটারের মাধ্যমে সম্পূর্ণ করতে হয় এবং স্কুলে বা কলেজে পড়াশোনা করেন সে ক্ষেত্রে আপনার ল্যাপটপ নেওয়া উচিত, আর যদি আপনার অফিসের কাজ থাকে বা ঘরে বসে সমস্ত কাজ করেন কম্পিউটারকে বাইরে নিয়ে যাওয়ার আপনার কোন প্রয়োজন নেই সে ক্ষেত্রে আপনার ডেক্সটপ কেনা উচিত ।


২. দাম ( Price )

ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ কেনার সময় আপনাকে একটু দামের দিকে ধ্যান রাখতে হবে এখানে ল্যাপটপের তুলনায় ডেক্সটপের দামের পার্থক্য দেখতে পাবেন এখানে দামে তুলনামূলকভাবে ডেক্সটপের কম ।
উদাহরণস্বরূপ যেমন মনে করুন আপনার বাজেট ৪০ হাজার টাকা এবং এতে আপনি একটি ল্যাপটপ নিবেন কিন্তু আপনার স্পেসিফিকেশন পছন্দ হচ্ছে না সেক্ষেত্রে আপনি ডেক্সটপ কিনতে পারেন যেখানে আপনি ল্যাপটপের থেকে বেশি স্পেসিফিকেশন বা ফিচারস পাবেন সেম বাজেটের মধ্যে, তো সব সময় মনে রাখবেন ল্যাপটপ এর থেকে ডেক্সটপ এর দাম কিছুটা হলেও কম ।


৩. আপগ্রেটিং পার্টস ( Parts Upgrading and Exchange )


এটি একটি খুব বড় পার্থক্য ডেস্কটপ এবং ল্যাপটপের মধ্যে যদি আপনি ল্যাপটপকে কিছুদিন ব্যবহারের পরে সেটিকে আপগ্রেড করতে চান পার্টস পরিবর্তন করতে চান সে ক্ষেত্রে আপনি সেটি পরিবর্তন করতে পারবে না, হ্যাঁ কিছু জিনিস আপগ্রেড করতে পারবেন কিন্তু সে ক্ষেত্রে ডেক্সটপ হলে আপনি তার সমস্ত পার্টস পরিবর্তন করতে পারবেন এবং ডেক্সটপ কে আরো পাওয়ারফুল করে তুলতে পারবেন ।

উদাহরণস্বরূপ মনে করুন আপনার বাজেট কম এবং আপনি একটি ডেক্সটপ নিয়েছেন এবং সেটি কিছুদিন ব্যবহারের পরে স্লো হতে লাগল, তখন আপনার কাছে টাকা  আছে সেটিকে আপগ্রেড করার জন্য তখন আপনি সেটিকে সম্পূর্ণ আপগ্রেড করতে পারবেন যেমন - তার PROCESSOR, RAM, HARD DISK, GRAPHICS CARD  সমস্ত কিছু পরিবর্তন করতে পারবেন, কিন্তু যদি আপনি ল্যাপটপ নিতেন তাহলে আপনি সমস্ত কিছু আপগ্রেড করতে পারবেন না শুধুমাত্র RAM এবং HARD DISK পরিবর্তন করতে পারবেন ।


৪. ডিসপ্লে স্ক্রীন সাইজ ( Display and Screen Size )

ডেক্সটপ নিলে আপনি আপনার পছন্দ অনুসারে ডিসপ্লে মানে মনিটর লাগাতে পারবেন , মনে করুন এখন আপনার বাজেট কম তো আপনি একটি ছোট মনিটর কিনে ব্যবহার করতে পারেন এবং পরে আপনি সেটিকে ভিডিও এডিটিং‌ এর কাজে ব্যবহার করতে চান সে ক্ষেত্রে ডিসপ্লে সাইজ একটু বড় হওয়া প্রয়োজন এবং গেমিং করার কাজে যদি ব্যবহার করেন তাহলে আপনার স্ক্রিন সাইজ একটু বড় দরকার সে ক্ষেত্রে আপনি আপনার ইচ্ছামত যত বড় মনিটর লাগাতে পারেন ।

এক্ষেত্রে আপনি যদি ল্যাপটপ নেন তাহলে ল্যাপটপ এ ফিক্স সাইজের  স্ক্রিনটি লাগানো থাকে যেমন ১৩ ইঞ্চি, ১৫.৬ ইঞ্চ ইত্যাদি সেটিকে আপনি পরিবর্তন করতে পারবেন না  এই অনুসারে আপনার ডেক্সটপ নেওয়া ভালো হবে ।


৫. পারফরম্যান্স ( Performance )

যখন আপনি কম্পিউটার নেওয়ার কথা ভাবেন সেটি ডেস্কটপ হোক বা ল্যাপটপ সব সময় আপনি একটা কথা ভাবেন যে সেটির পারফরম্যান্স যেন ভালো হয়, এই বিষয়ে একটা কথা আপনাকে জানিয়ে রাখি যে সবসময় ডেক্সটপের পারফরম্যান্স ল্যাপটপের তুলনায় সামান্য ভালো , যদি আপনি হেভি কাজ করতে চান যেমন- আপনার কাজ ভিডিও এডিটিং করা গেম খেলা গেমিং এর জন্য কিনতে চাইছেন তাহলে আপনার ডেক্সটপ নেওয়া ভালো হবে, আর যদি আপনি সামান্য হালকা কিছু কাজের জন্য নেবেন যেমন এমএস ওয়ার্ড, এমএস এক্সেল, ইন্টারনেট সার্চিং , ভিডিও প্লে  ইত্যাদি সেক্ষেত্রে আপনার ল্যাপটপ নেওয়া খুবই ভালো হবে ।

Laptop vs Desktop কোনটি নেবেন ?

অবশেষে আমি বলবো যে ল্যাপটপ নেওয়ার মেন কারণ হচ্ছে পর্টাবিলিটি যদি আপনি এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ট্রাভেল করেন এবং ল্যাপটপ না হলে আপনার কাজ সম্পূর্ণ হবে না সেক্ষেত্রে আপনাকে ল্যাপটপ নেওয়া প্রয়োজন কিন্তু যদি আপনার কাজ খুব হেভি হয় যেমন ভিডিও এডিটিং, গেমিং এবং কিছু হেভি সফটওয়্যার এর মাধ্যমে কাজ এবং পরবর্তী সময় যদি আপনি আপনার ডিভাইসকে আপগ্রেড করতে চান তাহলে আপনার ডেক্সটপ নেওয়া সবচেয়ে ভালো হবে , ল্যাপটপ এবং ডেস্কটপ দুটি তাদের জায়গা অনুসারে ভালো এবারে আপনাকে আপনার কাজের প্রয়োজনীয়তা অনুসারে কোনটা নিবেন তা পছন্দ করতে হবে ।

আশা করছি আপনি এই What Difference Between Laptop and desktop in bangla আর্টিকেল থেকে বুঝতে পারলেন আপনার কাজের অনুসারে কোনটি নেওয়া সবচেয়ে ভালো হবে, ভালো লাগলে এই আর্টিকেলটি আপনার বন্ধুর সঙ্গে শেয়ার করবেন , ধন্যবাদ ।
What Difference Between Laptop vs Desktop in bangla কোনটি কেনা উচিত ? What Difference Between Laptop vs Desktop in bangla কোনটি কেনা উচিত ? Reviewed by specialwish on November 25, 2019 Rating: 5

Wish Website Kaise Banaye ( How To Make a Wish Website ) ?

November 22, 2019

Wish Website Kaise Banaye ( How To Make a Wish Website ) ?


Wish Website Banao Aur Daily $20 Kamao

Hello Friends Hamare Website Par Apka Swagat Hai Aj Hum Batayenge Kaise Ap Ek Wish Website Bana Sakte Hai And Usme Kafi Accha Paise Vi Earn Kar Sakte Ho, To Friends Ap Vi Chahate Hai Ki Wish Website Banaye To Hamare Is Tutorial ko Step-by-step Follow Kare. Wish Website Aap Mobile Ya Tablet Par Vi Banasakte Hai Lakin Aapke Pas Laptop Hai To Aur Accha Hoga.

Wish Website Banane Ke Liye Steps


Wish Website Aap Do Tarikhe Se Bana Sakte Hai 1) Paisa deke Yani Aapko Domain And Web Hosting Buy Karne Padega  2) Free Me,    Basically Sabhi Log Free Me Wish Website Banakar Bohat Money Earn Karraha Hai, So Is Tutorial Me Aapko Free Me Website Banana Sikhaunga Aap Accha Se Sare  Steps Ko Follow Kare.

Wish Website Banane Ke Liye Steps


Step 1: Sabse Pahele Apko Blogger.com Open Karna Hoga.

Step 2: Blogger Open Hone Ki Bat Aap Apne Email or Password Deke "Sign in" Karligiye.

Step 3: Uske Bat Aapko Dekhai Dega "Create A New Blog" Usko Click Karna Hai.

Step 4: Aab Title Box  Me Aapna Blog Ka Name Rakh Lijiye ( ex: Wish ) And Address Box Me Aap Jo Website Ka Nam Yani URL Rakhna Chahate Hai Usko Rakh Lijiye  friends Eha .Blogspot Rahega Q Ki Aap Free Me Domain Le Rahe Ho Aap Chaho To .com  Ya .in Domain Buy Karke Add Kar Sakte Ho.

Step 5: Aab Apko Aapne Blog Ke Liye Theme Select Karna Hoga ( ex: Contempo, soho, simple, etc )  App Koi Vi Ek Theme Ko Select Karlo And "Create Blog" Button Par Click Karlo. Ea Theme Aapko Bat Me Change Karne Hogi.

Step 6: Aab Aap Blogger Ki Dashboard Par Aajaoge And Aapko "Layout" ki Niche "Theme" Option Dekhai Dega Phir se "Theme" Par Click Karna Hai.

Step 7: Aab Apko Wish Website Ke Liye Ek Alag Theme Select Karna Hoga Aap Scroll Karke Niche Aaye And Sabse Niche Dekhai Dega "Revert to classic themes" Us Par Click Karna Hai And Niche Aur 2 Option Hoga - "Revert to classic theme" and "View classic theme" Aapko Phir se "Revert to classic theme" Par Click Karna Hai.

Step 8: Aab Apko Dekhai Dega "Change NavBar" Us Option Ko Aapko "Off" Kardeni Hai.

Step 9: Aab Niche Dekhai Dega Edit Theme HTML And Uski Niche Ek HTML Ki Box Dekhne Ko Melenga Us Box Me Aap Ko  Pahale Jo Code Hai Sabko Delete Karke Wish Script Ki HTML Code Paste Kardeni Hai .

Note : Wish Script Aap Youtube Par Search Karke Paa Sakte Ho Ya To Aap Mujhse Comment Kare Script Aapko Dedunga. Us Script Ko Aapko Thoda Edit Karne Honge Jaisa Ki Website Ki URL Change Karna, Adsense Ad Code Dena, Aapki Marji Image set Karna, Etc. Sab Aapko Karne Honge Boo Karna Ekdom Easy Hai Aap Youtube Par ek Video Dekhkar Vi Sikh Sakte Hai.

Step 10: Script Ki HTML Code Paste Karne Ki Bat Save Theme Par Click Karna Hai.

Step 11: Friends Last Me Aapko Aur Ek Bar Theme Section Par Jana Hoga And Aap Dekh Paoge Desktop Preview And Mobile Preview Friends Mobile Preview Box Ki Niche Ek Setting Icon Milega Usko Click Karke Only Desktop Mode Kardeni Hai. Nahito  Serf Desktop Par Aapna Website Show Hogi Mobile Par Nahi Show Hogi. Ishiliye us Setting Ko Must Karlena Hai.


Wish Website Kaise Kam Karta Hai ?


Finally Aapka Wish Website Puri Tarikha Se Bangaya Hai, Us Website Se Aap Kafi Accha Money Vi Earn Kar Payenge Adsense Ke Through. Is Website Basically Events Par Accha Chalta Hai Jaise Ki - Independence Day,  Durga Puja, etc. Usi Time Aapka Website Par Traffic Accha Rahega Aur Income Vi Accha Hogi.

Wish Website Ke Sare Details Aapko Dediya And Wishing Website Kaise Banate Hai Step By Step Bata Diya Umeed Hai Aap Vi Wish Website Bana Paoge.  Friends Hamare Tutorial Aapko Accha Laga Hai To Aapne Friends Ke Sath Share Kordo And Agar Koi Question Hai To Comments Karke Puch Sakte Hai Hum Jorur  Reply Dene Ki Kosish Korunga.. Thanks For Read This Post.


Wish Website Kaise Banaye ( How To Make a Wish Website ) ? Wish Website Kaise Banaye ( How To Make a Wish Website ) ? Reviewed by specialwish on November 22, 2019 Rating: 5

how create new gmail account in hindi gmail sign up kaise kare?

November 04, 2019

Gmail Sign up Kaise Kare New Email Account Kaise Banaye ?



 Hello Friends Hamare Website Par Apka Swagat Hai Aj Hum Batayenge Kaise Aap New Email Account Create Karsakte Hai,  Friends Email Account Bohat Kam Me Aate Hai, Email Acciunt Nahi Hai To Google Ki Koi Vi Service Kam Nahi Karega Jaise Ki - Play Store, Map, Google Drive, etc.  Friends Email Account Create Karna Bohat Aashan Hai, Bohat Log Hai Email Account Create Karna Nahi Janta Hai To Is Tutorial Me Hum Step By Step Sikhayyenge. Janne Ke Liya Step Ko Dhyan Se Follow Kare.



New Email Account



 How To Create New Email Account in Hindi ?

 Step 1: Sabse Pahele Google Par Search Koro "Gmail Sign Up" And Sabse Uppor Jo Site Aayegi Usko Click Korlo.

Step 2: Aab Aapko Fillup Karna Hoga Aapka "First Name",  "Last Name",  "User Name" ( User Name Matlab Aap Aapna Email Id Ka Jo Naam Rakhna Chahate Ho.) And "Password" Dene Ki Bat Niche  "NEXT" Button Par Click Kare.

Step 3: Aab Aapko Aapna Country Select And Phone Number Dena Hoga Uske Bat "NEXT" Button Par Click Karna Hai.

Step 4: Aab Aapki Mibile Number Par Verification Code Veja Jayega Aap Us Code Ko Enter Kare And "VERIFY" Button Par Click Kare.

Step 5: Aap Aapki Date Of Birth And Gender Fillup Karna Hoga Aap Aapna DOB And Gender Fillup Kare And "NEXT" Button Par Click Kare. That's it.

Finally Aapka New  Email Account Create Hogaya Hai Aabse Aap Kisi Ko Vi Email Karsakte Hai And Koi Vi Aapko Email Karsakta Hai.

Email Account Ka Benifits Kiya Hai ?

Friends Email Account Ka Bohat Fayda Hai Jaise Ki Email Account Rahane Se Aap Youtube Channel Khol Sakte Ho,  Google Assistance Ko Use Karsakte Ho,  Google Maps Ko Use Kar Paoge,  Google Play store Ko Use Kar Paoge etc.  Email Account Ka Bohat Kam Hota Hai Email Account Aapko Must Create Karna Hai Nahito Aap Koi Vi Suvida Nahi Paoge.

Kisiko Email Kaise Send Kare ?

Friends Email Account Banana To Sikh Liya Aab Sikhenge Kaise Kisiko Email Send Karte Hai,  Email Send Karne Ke Liye Niche Diyegayee Steps Ko Acche Se Follow Kare.




Step 1: Sabse Pahele Gmail App Open Kare Aapna  Android Phone Se Aap Computer Se Karrahe To Google Par Serh Kare Gmail.com

Step 2: Aab Aapko Android Phone Me Dekhai Dega Ek "Pencil" Ki Icon And Computer Me Dekhai Dega "New Mail" Aap Usko Click Koro.

Step 3: Aab Aapko Dekhai Dega "From" Usme Aapki Email Id Dekhai Dega And Uske Niche "To:" Is "To:" Ki Box Me Aap Jisko Email Vejna Chahate Ho Uska Email Id Dedo,   And "Subject" Ki Box Me Aapna Subject Likh Dijiye And Sabse Niche Ek Big Space Hai "Compose Email" Usme Aap Jo Baat Send Karna Chahate Ho Usko Likh Lijiye And "Send" Button Par Click Kardo. That's it Aapka Email Send Ho Jayega.
Friends Aise Email Send Kiya Jata Hai.

Friends Is Tutorial Me Hum Bataya Kaise Email Account Create Kare And Kaise Email Send Kare Umeed Karta Hu Aapko Is Tutorial Pasand Aayeega Agar Pasand Aaya Hai To Aapna Friends Ke Sath Share Karna Na Vuleen, And Koi Questions Hai To Comments Karke Puch Sakte Hai Hum Jorur Reply Dene Ki Kosish Korunga. Thanks.


how create new gmail account in hindi gmail sign up kaise kare? how create new gmail account in hindi gmail sign up kaise kare? Reviewed by specialwish on November 04, 2019 Rating: 5

Earn Money Online With Loco App in Hindi

August 12, 2019

Loco Tricks Earn Money Online With Loco App in Hindi


Hi Friends Apko Hamare Website Me Swagat Hai Aj Hum Batayenge Kaise Ap Loco App Ko Use Karke Accha Khasa Money Earn Kar Payenge.  Loco App Kaise Use Kare, Kaise Setup Kare Sab Kuch Janne Ke liye Hamare is Tutorial ko Step-by-Step Follow Kare.

Loco, Loco Android Application, Loco Tips And Tricks
loco application

Loco Application Me Sign-up Kaise Kare?All About Loco Application



Step 1: Sabse Pehle Play Store Ko Open Kare And Search Bar Me Search Kare "Loco".

Step 2: Jaise Hi Loco Search Karenge Sabse Uppor Loco Ki Official App Aajayegi  Usko Install Karnena Hai.

Step 3: Ab Loco App Ko Open Kare And Apna Country Code And Phone Number Deke "Next" Ki Button Par Click Kare.

Step 4: Ab Apki Mobile Number Me Ek OTP Ayega Us OTP Ko Enter Kare.

Step 5: Ab Apki Full Name Enter Kare And "Done" ki Button Par Click Kare.

Step 6: Finally Apko Sare Permissions Ko Allow Kardena Hai. That's it Your Loco Account Is Create.

Uske Bat Apko Ek Tutorial Dekhayega Kaise Loco Khelte Hai Us Bare Main. Friends Loco Ek Aisa Application Hai Jaha Aap 10 Questions ki Correct  Answers Deke Kafi Sare Real Money Jit Sakte Hai Boo Cash Apki Paytm Account Me Transfared Kardiya Jayega.

Loco Ek Live Quiz Game Contest Hai Jo Daily 10:00 PM Se Start Hota Hai.

Loco Tricks

  Loco Application Ko Reffer Karke Ap Life Jit Sakte Hai Matlab Apka Pas Jitna Life Hoga Utna Bar Ap Answer Dene Ki Chance Payenge Agar Apka Answar Galat Hai To.
loco-app



 Friends Loco Khelke Bohat Log Accha Money Earn Kar Raha Hai So Aap Vi Loco App Ko Try Kare Kiya Pata Aap Ka Vi Dher Sare Money Earn Ho JayeBest Of Luck Friends.
Friends Is Tutorial Me Hum Dekhaya Hai Ki Aap Kaise Loco App Me Sign-up Karke Usko Use Kar Sakte Hai, Loco App Kafi Accha Hai Mai Vi Loco Use Karta Hu. Friends Umeed Karta Hu Apko Is Tutorial Pasand Aaya hoga agar pasand aaya to friends ki sath share Kare. And Loco ke Releted Kuch Questions Hai To Hame Comments Karke Puch Sakte ho hum reply dene ki kousis karenge.. Thank you for Read The Tutorial
.
Earn Money Online With Loco App in Hindi Earn Money Online With Loco App in Hindi Reviewed by specialwish on August 12, 2019 Rating: 5

ONE AD Se Paise Kaise Kamaye ( Make Money Online From ONE AD )

August 12, 2019

ONE AD Se Paise Kaise Kamaye ( Make Money Online From ONE AD )

Hello Friends Hamare Website Me Apko Swagat Hai.  Is Tutorial Hum Batayenge Kaise Ap ONE AD Android Application Se Money Earn Karsakte Ho. Friends Agar Aap Vi Chahate Ho Ki ONE AD Se Paise Kamaye To Tutorial Ko Step By Step Follow Kare.

ONE AD Ki Sab Jankari  ( All About ONE AD )


ONE AD Par Account Kaise Banaye ( How Create ONE AD Account )

Step 1: Sabse Pahele "Play Store" Open Kare

Step 2: Search Bar Me ONE AD Search Karke App Ko Install Kare.

Step 3: App Ko Open Kare And "Sign Up" Kare.

Step 4: Apne Language Select Kare English/Hindi And "Continue" Button Par Click Kare.

Step 5: Apna Mobile Number Deke "Continue" Kare.

Step 6: Uske Bat Enter Reffer Code Ki Box Me "91AUNYY99" Enter Karke "Next"  Ki Button Par Click Kare.

Step 7: Ab Apki Mobile Number Me OTP Ayegi Usko Type Kare And Ek Password Create Karke T&C Ko Agree Korlo And "Submit" ki Button Me Click Kare.

Step 8: And Uske Bat ONE AD Apko Ek Video Dekhayega Usko Dekh Kar "Continue" Kare. That's it Apka ONE AD Ki Account Bangaye.

ONE AD Par Paisa Kaise Banta Hai

ONE AD Par Account Create Hone Ki Bat Apko Vi Ek Reffer Code Dega ( For Ex- 91AUNYY99 ) Us Reffer Code Ko Apni Friends Ko Dena Hoga Matlab Apni Friends Ko Bolo ONE AD App Ko Install And Apna Reffer Id Use Kare.  ONE AD 10 Level Tak Income Deta Hai Matlab Apki Friends Jisko Reffer Karega Uska Commissions Vi Apko Milega Aisa Karke 10 Level Tak Hoga. Aise ONE AD Par Paisa Banate Hai.

ONE AD  Real Ya Fake

Friends Bohat Log Bolta Hai ki ONE AD Fake Hai Boo Log Is App Use Nahi Karte Lakin Friends Mai ONE AD Ko Use Karraha Hu ONE AD Bilkul Real Hai Sach Me Paise Dete Hai Hum Apko Niche Withdraw Proof Vi Dekhaya Hai.
make-money-one-ad



ONE AD Se Paise Kaise Withdraw Kare

Friends ONE AD Se Paise Withdraw Karne Ke Liye Apko Kuch Rules Follow Karne Hogi Jaise Ki - ONE AD Me Minimum  R.s ₹5 Hone Ki Bat Withdraw Hogi Direct Bank Account Ya Paytm Me.  1 Transaction Ke Liye R.s &₹3 Charge Company Lange. Simply Apna Paytn Number Ya Bank Account Number Do And ONE AD Ki Password Do And Withdrawal Korlo.

ONE AD Kaise Kamata Hai

Friends ONE AD Se To Humlog Paise Kamate Hai Lakin Apko Pata Hai ONE AD Company Kaise Paise Kamate Hai.. Friends ONE AD App Install Rahane se Jab Ap Phone Ko Unlock Karne Ke Liye Power Button Press Karenge Tab Apki Screen Me Ad Dekhai Dega. Din Me Jitne Bar Phone Unlock Karte Ho Utne Bar Ad Show Hoga Aur ONE AD Ki App Me Vi Add Show Hoga Us Add Ki Paisa ONE AD Company Ko Milta Hai Aur Usme se Kuch Paise Hume Deta Hai.

Friends Hamne Is Tutorial Me Bata Diya Ki ONE AD Se Kaise Paise Kamaye Umeed Hai Apko Pasand Aaya Hoga, Pasand Hai Apna  Friends ke Sath Share Kare Aur Kuch Questions Hai To Comments Karke Puch Sakte Hai Mai Reply Dene Ki Kosish Karunga. Thanks.

ONE AD Se Paise Kaise Kamaye ( Make Money Online From ONE AD ) ONE AD Se Paise Kaise Kamaye ( Make Money Online From ONE AD ) Reviewed by specialwish on August 12, 2019 Rating: 5

Aapna Aadhar Car Download Kaise Kare ?

August 07, 2019


Aapna Aadhar Car Download Kaise Kare ?


Hello Friends Hamare Website Par Apka Swagat Hai Aj Hum Batayenge Kaise Ap Online Se Aapna Aadhar Card Download KarSakte Hai. Friends Aaj Kal Aadhar Card Bohot Hi Joruri Hogaya Hai,  Aadhar Sab Jaga Par Lagta Hai Jaise Ki Sim car Lena Ho Ya Phir Bank Me Account Kholna Har Jaga Aadhar Car Mandatory Hai.  Friends Aadhar Card Post Office Ki Through Aane Me Bohat Time Lagta Hai Aap Online Me Aapka Aadhar Card Download Karke Aadhar Number Ko Use Karke Kuch Kam Me Laga Sakte Ho. Aadhar Card Download Karne Ke Liye Hamare Tutorial Ko Accha Se Step By Step Follow Kigiye.

aadhar-card-download


Online Aadhar Card Download Kaise Kare ?


Step 1: Sabse Pahele Aadhar Ki Official Govment Site Par Jaiye - www.uidai.gov.in,   Aadhar Card Download Karne Ke Liye Sabse Pahele Aadhar Ki Official Site Par Aana Padega.

Step 2: Aadhar Ki Official Site Par Aane Ki Bat Aadhar Enrolment Ki Groups Me Aapko "Download Aadhar" Dekhai Dega Aadhar Card Download Karne Ke Liye Uspar Click Kare.

Step 3: Download Aadhar Par Click Karne Ki Bat Ek New Tab Open Hoga And Usme Aapka "Enrolment Id" Dena Hoga Enrolment Id Matlab Aap Jiske Pas Aadhar Card Karne Gaya Tha Boo Aapko Ek Receipt Copy Diya Tha Usme Enrolment Id Likha Hai Usko Fillup Kordo.

Step 4: Enrolment Id Dene Ki Baat Aapko Date And Time Dene Hoga Boo Date And Time Receipt Copy Par Likha Hai Usko Fillup Karo.



Step 5: Aab Aapko "Full Name"  Dene Hoga And  Pin Code Dene Hoga,  Side Me Ek Code Likha Hai Usko Dekh ke "Enter Security Code" Ki Jaga Par Likhna Hoga And Finally Niche "Request OTP" Button Par Click Karna Hoga.

Note : Aapki Aadhar Ke Sath Aapna Mobile Number Must Dena Hoga Nahi To Aap Online Se Aadhar Card Download Nahi Karsakte Hai. Aapki Register Mobile Number Par OTP Aayega Us OTP Ko Submit Karne Ki Bat Aapka Aadhar Download Hoga. Aadhar Card Karne Ke Samay Aapna Mobile Number Must Do.

Step 6: Aab aapna Mobile Number Par Jo OTP Aaya Hai Usko "Enter OTP" Ki Box Par Enter Kardo And Finally "Download Aadhar" Button Par Click Kordo Aapka Aadhar Card Download Hona Starh Ho Jayega.



Friends Umeed Hai Apko Hamara Tutorial Pasand Aaya Hoga And Aap Vi Online Se Aapna Aadhar Card Download Karpaoge, Tutorial Pasand Aaya To Aapna Friends Ke Sath Share Kare And Kuch Questions Hai To Niche Comments Karke Puch Sakte Hai Hum Jorur Reply Dene Ki Kosish Korunga. Thanks.

Aapna Aadhar Car Download Kaise Kare ? Aapna Aadhar Car Download Kaise Kare ? Reviewed by specialwish on August 07, 2019 Rating: 5
Powered by Blogger.